brandbazaar globaire air conditioner
ব্রেকিং নিউজঃ

এশিয়া কাপে ভারত-পাকিস্তান মহারণ নিয়ে সৌরভ যা বললেন

এশিয়া কাপে ভারত-পাকিস্তান মহারণ নিয়ে সৌরভ যা বললেন

অবশেষে সব অপেক্ষার অবসান ঘটছে। আজ রাতে শ্রীলঙ্কা-আফগানিস্তান ম্যাচ দিয়ে মাঠে গড়াচ্ছে এশীয় ক্রিকেটের সর্বোচ্চ আসর এশিয়া কাপ। আর আগামীকাল মুখোমুখি হবে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারত-পাকিস্তান। দুই প্রতিবেশীর ধ্রুপদী ক্রিকেটীয় দ্বৈরথ দেখতে মুখিয়ে গোটা বিশ্বের ক্রিকেট অনুরাগীরা। সেই ম্যাচের আগে চলছে নানা হিসাব-নিকাশ। কে কার চেয়ে এগিয়ে, কারো জয়ের সম্ভাবনা বেশি, কোন মানদণ্ডে একে অন্যকে পেছনে ফেলবে তারা, সেসব নিয়ে চলছে জোর জল্পনা-কল্পনা।

ভারতের সাবেক অধিনায়ক এবং বর্তমান বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি অবশ্য ভারত-পাকিস্তান মহারণের আগে কাউকেই এগিয়ে রাখছেন না। টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটের সহজাত অনিশ্চয়তার বিষয়টিকে সামনে এনে সৌরভ বললেন, ‘ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ আর যে কোনো ম্যাচের মতোই। এটা ঠিক যে একটা আলাদা চাপ থাকে। তবে রোহিত শর্মা, লোকেশ রাহুল, বিরাট কোহলিরা ভালোই জানে কীভাবে চাপ সামলাতে হয়। এগিয়ে-পিছিয়ে কেউ নেই। টি-টোয়েন্টিতে যা খুশি হতে পারে।’

টি-টোয়েন্টিতে ফেভারিট তত্ত্বের তুচ্ছতা প্রমাণে আইপিএলের উদাহরণ টেনে আনেন সৌরভ, ‘টি-টোয়েন্টিতে কেউ এগিয়ে নেই। যা খুশি হতে পারে। কেউ ভেবেছিল গুজরাট আইপিএল জিতবে! হার্দিক পাণ্ডিয়ার দলে ফেরাটা খুব ভালো ব্যাপার।’

পাকিস্তানের কিংবদন্তি ক্রিকেটার ওয়াকার ইউনুস বলেছিলেন, গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতের যমরূপে আবির্ভূত হওয়া পেসার শাহীন শাহ আফ্রিদির চোটের ফলে দলে না থাকার বিষয়টি তাদের জন্য স্বস্তির বিষয় হতে পারে। তবে সৌরভ এই তত্ত্বের সঙ্গে একমত পোষণ করলেন না। শুক্রবার এক অনুষ্ঠানে এশিয়া কাপ নিয়ে আলোচনায় তিনি বলেন, ‘আমাদেরও তো বুমরাহ নেই। একজন ক্রিকেটারের না থাকা বড় পার্থক্য গড়ে দিতে পারে, এমনটা আমার মনে হয় না।’

এরপরই পাকিস্তানের বিপক্ষে ভারতের সোনালী অতীতের কথা মনে করিয়ে দেন দেশটির সাবেক অধিনায়ক, ‘আমরা ১৯৯২ থেকে ওদের বিরুদ্ধে বিশ্বকাপে খেলছি। প্রতিবার আমরাই জিতেছি। ৩০ বছরে মাত্র একবার হেরেছি। এ রকম একটা-দুটো ম্যাচে হতেই পারে। এ নিয়ে ঘাবড়ানোর মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়নি।’

দীর্ঘ সময় ধরে অফ ফর্মের কারণে ধুঁকছেন দেশটির অন্নতমসেরা ব্যাটসম্যান কোহলি। সৌরভ অবশ্য এখনো কোহলির রানখরা নিয়ে বিচলিত নন, ‘কোহলির ব্যাটে রান না থাকলেও ও অনেক বড় ক্রিকেটার। অনেক দিন ধরে খেলছে। ওর নিজের একটা ফর্মুলা আছে রান করার। সেটা ঠিক ফিরে পাবে। আর কোনও দিন রান পাবে না, এমনটা হয় না।’

২৮ আগস্ট বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় দুবাই আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হবে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারত এবং পাকিস্তান।

 

Related posts