brandbazaar globaire air conditioner

প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণের পর গলাকেটে হত্যা

প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণের পর গলাকেটে হত্যা

চুয়াডাঙ্গায় পরকীয়ার জের ধরে এক কুয়েত প্রবাসীর স্ত্রীকে গলাকেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। এরই মধ্যে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার (৮ সেপ্টেম্বর) ভোরের দিকে সদর উপজেলার নতুন যাদবপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে একটি ছুরি উদ্ধার করা হয়েছে।

নিহত আয়না খাতুন (৩৮) একই গ্রামের কুয়েত প্রবাসী হাবিবুর রহমান হাবিলের স্ত্রী। নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

আটককৃতরা হলেন, একই গ্রামের মৃত সোহরাব হোসেনের ছেলে হাসান আলী (২৮), মৃত বাহার লস্করের ছেলে আব্দুর রহমান (৫২) ও ওসমান মণ্ডলের ছেলে মামুন মণ্ডল (২৭)।

স্থানীয়রা জানান, প্রায় ১৮ বছর আগে জীবিকার তাগিদে কুয়েতে যান হাবিল। সেই থেকে একই গ্রামের ওসমান মণ্ডলের ছেলে মামুন মণ্ডল আয়না খাতুনকে বিরক্ত করতো। এদিকে খুন হন আয়না খাতুন। সেসময় বাড়ির প্রধান ফটক ও ঘরের মূল ফটক বন্ধ ছিল। তার চিৎকারে বাড়ির আশপাশের সবাই ছুটে আসলেও তার আগেই মারা যান আয়না খাতুন। পরে খবর পেয়ে রাতেই ঘটনাস্থলে এসে লাশের পাশ থেকে একটি ছুরি উদ্ধার করে পুলিশ। এদিকে লাশ দেখে ধর্ষণের পর খুন করা হয়েছে বলে ধারণা করছেন স্থানীয়রা। এ ঘটনায় ৩ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ।

সরোজগঞ্জ ক্যাম্পের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (পরিদর্শক) নিখিল অধিকারী জানান, কারও একার পক্ষে এই ঘটনা ঘটানো সম্ভব নয়। ধারণা করা হচ্ছে, কয়েকজন মিলে এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে। বুধবার (৮ সেপ্টেম্বর) সকাল ৯টার দিকে লাশ সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে। এরই মধ্যে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

তিনি আরও জানান, নিহতের শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছুরিকাঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ধর্ষণ হয়েছে কি না। তা ময়নাতদন্তের পরই জানা যাবে।

Related posts

body banner camera