brandbazaar globaire air conditioner

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি ছিনিয়ে নিয়েছে জঙ্গিরা

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি ছিনিয়ে নিয়েছে জঙ্গিরা

ঢাকার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের প্রধান ফটকের সামনে থেকে দীপন হত্যা মামলার মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের দুই সদস্যকে ছিনিয়ে নিয়েছে জঙ্গিরা। ওই ঘটনার খবর পেয়ে তাৎক্ষণিকভাবে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে এসেছেন ডিএমপির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

রোববার (২০ নভেম্বর) দুপুর ২টা ৪৫ মিনিটের দিকে কোর্ট প্রাঙ্গণের আসামি গারদে ঢোকেন কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্স ন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটটিস) প্রধান অতিরিক্ত কমিশনার মো. আসাদুজ্জামান।

এর আগে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে আসেন গোয়েন্দা পুলিশ প্রধান মোহাম্মদ হারুন-অর-রশিদ। এছাড়া র‌্যাব সদর দপ্তরের গোয়েন্দা, র‌্যাব-১০ এর কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে উপস্থিত রয়েছেন।

ডিএমপি সূত্রে জানা গেছে, আজ নতুন কমিশনারের সভাপতিত্বে ডিএমপি সদর দপ্তরে মাসিক ক্রাইম কনফারেন্স চলছিল। এমন সময়ে গোয়েন্দা তথ্য আসে ঢাকার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের প্রধান ফটকের সামনে থেকে দীপন হত্যা মামলার মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের দুই সদস্যকে ছিনিয়ে নিয়ে গেছে অন্য জঙ্গিরা।

তারা হলেন, সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার মাধবপুরের মইনুল হাসান শামীম ও লালমনিরহাটের আদিতমারি উপজেলার ভেটেশ্বর গ্রামের আবু সিদ্দিক সোহেল ওরফে সাকিব। ওই ঘটনার পরই ক্রাইম কনফারেন্স তাৎক্ষণিকভাবে শেষ করে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন ডিএমপির উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

এদিকে ঘটনার পর ঢাকার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত প্রাঙ্গণ ও আশপাশের এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে যান চলাচল। মোতায়েন করা হয়েছে বিপুল সংখ্যক আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য। ঘটনাস্থলে দেখা গেছে সোয়াট টিম সদস্যদেরও। এপিসি ও সাজোয়া যানসহ বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিটকে। সর্বশেষ খবর অনুযায়ী লাপাত্তা দুই জঙ্গি সদস্যের সন্ধান মেলেনি।

 

Related posts