brandbazaar globaire air conditioner
ব্রেকিং নিউজঃ

রাজধানীতে সিজারের সময় বাচ্চা কেটে ফেলার অভিযোগ

রাজধানীতে সিজারের সময় বাচ্চা কেটে ফেলার অভিযোগ

ঢাকার মাতুয়াইলে একটি হাসপাতালের বিরুদ্ধে সিজারের সময় শরীর কেটে গিয়ে শিশু মৃত্যুর অভিযোগ করেছেন স্বজনরা। ঢাকার মাতুয়াইল মেডি কেয়ার হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ ওঠে।

স্বজনদের অভিযোগ, অনভিজ্ঞ ডাক্তার দিয়ে অপারেশন করার কারণেই শিশুর মৃত্যু হয়েছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক কিছু না বললেও বিষয়টি মীমাংসা হয়ে গেছে বলে একটি অনাপত্তি পত্র দেখায়। যদিও শিশুটির স্বজনদের দাবি, অনেকটা নিরুপায় হয়ে ঐ অনাপত্তি পত্রে সই করেছেন তারা।

বৃহস্পতিবার রাত দশটার দিকে রাজধানীর মাতুয়াইল মেডি কেয়ার হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে সন্তান সম্ভাবা স্ত্রীকে ভর্তি করার ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী রেজাউল করিম। এর দেড় ঘণ্টা পর প্রসব ব্যথা শুরু হলে চিকিৎসক বেগম শামসুন্নাহার শিরিনের তত্ত্বাবধানে সিজারিয়ান অপারেশন করা হয়।

রাজধানীতে সিজারের সময় বাচ্চা কেটে ফেলার অভিযোগ

এর দশমিনিট পর উপস্থিত স্বজনদের জানানো হয়, ছেলে সন্তানটি মারা গেছে। কি কারণে মারা গেছে তাৎক্ষনিক কিছুই জানানো হয়নি। নিহত শিশুর স্বজনদের অভিযোগ, অপারেশন করতে গিয়ে শিশুটির শরীর কেটে যাওয়ায় তার মৃত্যু হয়। এমনকি শিশুর মৃতদেহ দিতেও গড়িমসি করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

বিষয়টি অনুসন্ধানে হাসপাতালে গেলে, প্রতিবেদককে বিভ্রান্ত করতে থাকে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের লোকজন। এমনকি এ নিয়ে সংবাদ প্রচার না করার জন্য অর্থের প্রলোভনও দেখানো হয়।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ক্যামেরার সামনে কোনো আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো কথা না বললেও শিশুর পরিবারের সাথে তাদের মীমাংসা হয়েছে গেছে এ বিষয়ে একটি মুচলেকা দেখানো হয়।

যদিও শিশুর পরিবারের দাবি, শিশুর লাশ ফেরত না দেয়া, ময়নাতদন্ত করা হবে এমন ভয় দেখিয়ে মুচলেকা আদায় করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

এদিকে হাইকোর্টের এক আইনজীবী জানিয়েছেন, এ ধরনের মুচলেকার আইনি কোন ভিত্তি নেই। শিশুটির পরিবার চাইলে, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে ক্ষতিপূরণ ও হত্যা মামলা করতে পারেন বলে জানান তিনি। ডেমরা থানা পুলিশ বলেছে, এ বিষয়ে অভিযোগ পেলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Related posts

Leave a Reply

body banner camera