brandbazaar globaire air conditioner

সৎভাইয়ের ধর্ষণে কিশোরী অন্ত:সত্ত্বার ঘটনায় লম্পট ভাই গ্রেফতার

সৎভাইয়ের ধর্ষণে কিশোরী অন্ত:সত্ত্বার ঘটনায় লম্পট ভাই গ্রেফতার

মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ার জালশুকা গ্রামে ছোট বোনকে (১৪) ধর্ষণের অভিযোগে শুক্রবার রাতে সৎ ভাইকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এরপর শনিবার অন্তঃসত্ত্বা ওই কিশোরীর মা সাটুরিয়া থানায় সুজন মিয়াকে (২২) আসামি করে ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। শনিবার দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, আসামি সুজনকে টাঙ্গাইলের দেলদুয়ার এলাকা থেকে গ্রেফতার করে সাটুরিয়া থানা পুলিশ।

এর আগে বৃহস্পতিবার রাতে ওই ধর্ষণের ঘটনায় দৈনিক নয়া দিগন্ত অনলাইনে ‘সাটুরিয়ায় কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা, অভিযুক্ত সৎ ভাই’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়।

ঘটনাটি বৃহস্পতিবার রাতেই এলাকায় জানাজানি হয়। অন্তঃসত্ত্বা ওই কিশোরী ও আসামি একই বাবার সন্তান।

ভুক্তভোগী ও মামলা সূত্রে জানা গেছে, এক বছরের বেশি সময় ধরে নিজের সৎ ভাইয়ের ধর্ষণের শিকার হয়ে আসছে ওই কিশোরী। ধর্ষণে বাধা দিতে গেলে মারধর করা হতো তাকে। ওই কিশোরীকে বিভিন্ন সময় নিজ ঘরে ধর্ষণ করত লম্পট সৎ ভাই সুজন মিয়া (২২)। সুজন পেশায় মিষ্টি দোকানের কর্মচারী।

মাকে বিষয়টি জানালেও কোনো প্রতিকার পায়নি বলে অভিযোগ কিশোরীর। লোকলজ্জার ভয়ে কিশোরী বিষয়টি কাউকে জানায়নি এতদিন। সম্প্রতি তার শারীরিক পরিবর্তন দেখা দিলে মাকে সে পুরো ঘটনা খুলে বলে। পরে আলট্রাসনোগ্রামে ধরা পড়ে কিশোরী চার মাসের অন্তঃসত্ত্বা।

সাটুরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আশরাফুল আলম জানান, ওই কিশোরীর মা সাটুরিয়া থানায় মামলা দায়ের করেছেন। শুক্রবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ও তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে আসামি সুজন মিয়াকে টাঙ্গাইলের দেলদুয়ার থেকে গ্রেফতার করা হয়।

 

Related posts

body banner camera