brandbazaar globaire air conditioner
ব্রেকিং নিউজঃ

হৃদয়ে লেগেছে আগুন আজ পহেলা ফাল্গুন

হৃদয়ে লেগেছে আগুন আজ পহেলা ফাল্গুন
মাহফুজ রাজা,কিশোরগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি :
বসন্ত বাতাসে সই গো বসন্ত বাতাসে..
বন্ধুর বাড়ীর ফুলের গন্ধ আমার বাড়ী আসে
সই গো বসন্ত বাতাসে….
বাউল সম্রাট শাহ আব্দুল করিমের গানে যেনো মনে
নিবিড় দোলা দিয়ে যায়।
শিমুলের মেলা। সব কিছুই জানান দিচ্ছে শুরু হয়েছে  ফাল্গুন। ফাল্গুনের হাত ধরেই ঋতুরাজ বসন্তের আগমন। ঋতুরাজকে স্বাগত জানাতে প্রকৃতির মাঝে এতো বর্ণিল সাজ। বসন্তের এই আগমনে প্রকৃতির সাথে তরুণ হৃদয়েও লেগেছে দোলা। সকল কুসংস্কারকে পেছনে ফেলে, বিভেদ ভুলে, নতুন কিছুর প্রত্যয়ে সামনে এগিয়ে যাওয়ার বার্তা নিয়ে বসন্তের উপস্থিতি। তাই কবির ভাষায়- ‘ফুল ফুটুক আর না-ই ফুটুক আজ পয়লা ফাল্গুন’।
 শিশু-কিশোর, আবালবৃদ্ধবনিতা, তরুণ-তরুণী বসন্ত উন্মাদনায় আজকে মেতে উঠেছে। শীতকে বিদায় জানানোর মধ্য দিয়েই বসন্ত বরণে চলছে ধুম আয়োজন। শীত চলে যাবে রিক্ত হস্তে, আর বসন্ত আসবে ফুলের ডালা সাজিয়ে। বাসন্তী ফুলের পরশ আর সৌরভে কেটে যাবে শীতের জরা-জীর্ণতা।
“নারী হয় লজ্জাতে লাল ফাল্গুনে লাল শিমুলবন
এ কোন রঙ্গে রঙ্গিন হলো বাউল মন”
এমনই মৃদুলা গানের সুরের ঝংকার আবেগী মনে।
বসন্তকে সামনে রেখে গ্রাম বাংলায় বিশেষ করে
কিশোরগঞ্জের হোসেনপুরে   নানা মনেলী আয়োজনের সমারোহ চলছে । ভালোবাসার মানুষেরা মন রাঙাচ্ছে বাসন্তি রঙ্গেই।  দিনটিকে আরো উপভোগ্য করে তুলতে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠন গ্রহণ করেছে নানা কর্মসূচি। গাছের জড়া পাতা শেষে এখন আবার নতুন পাতা পল্লবে সেজেছে গাছগুলো।
 শীতের শেষে ঋতুচক্রের এই মাস বাঙালির জীবনে প্রকৃতির রূপ বদলে যায়। প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরেও পহেলা ফাল্গুন ঋতুরাজ বসন্ত উৎযাপিত হচ্ছে । হোসেনপুরে  সকাল থেকেই বিভিন্ন  শিক্ষার্থীরা বসন্তের রঙে নিজেদের রাঙিয়ে তুলতে বাহারী রঙের শাড়ি ও ফুলের মালায় নিজেদের সাবলীলভাবে ফুটিয়ে তোলেছে।
 গাছে গাছে ফুল ফুটবার এ দিনটিকে চিরাচরিতভাবে পহেলা ফাল্গুন হিসেবে বাংলা মাসের গণনা শুরু হয়। ঝরে পরা শুকনা পাতার মর্মর ধ্বনির দিন শেষ হয়ে আসে। কচি পাতায় আলোর নাচনের মতই বাঙালির মনেও দোলা লাগায়। একই সাথে বাসন্তি রংয়ের শাড়ি ও পাঞ্জাবি গায়ে জড়িয়ে আনন্দে মেতে ওঠেছে হোসেনপুরের তরুণ-তরুণীরা।
মহামারি করোনার আনুষ্ঠানিক প্রতিবন্ধকতা থাকলেও ব্যক্তিগত ভাবে পূর্বেই রঙ্গলীলায় প্রস্তুত বসন্তের ফাগুনী দল, আগুন লাগা মনে ছুটে বেড়াচ্ছেন মনোমুগ্ধকর শিমুলবন কিংবা দর্শনীয় স্থানে।

Related posts