brandbazaar globaire air conditioner
ব্রেকিং নিউজঃ

ক্যানসার প্রতিরোধের মিরাকল পদ্ধতি

ক্যানসার প্রতিরোধের মিরাকল পদ্ধতি

আমরা অনেকে উচ্চ রক্তচাপ, লিভার সংক্রান্ত জটিলতায় কিংবা ক্যানসারে ভুগে থাকি। ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভ ও লুহান্সকের একদল চিকিৎসক একটি বিস্ময়কর পদ্ধতি আবিষ্কার করেছেন। পদ্ধতিটি বেশ কিছু রোগ প্রতিরোধ ও চিকিৎসায় কার্যকরী।

ক্যানসার প্রতিরোধের মিরাকল পদ্ধতি

আমরা অনেকে উচ্চ রক্তচাপ, লিভার সংক্রান্ত জটিলতায় কিংবা ক্যানসারে ভুগে থাকি। ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভ ও লুহান্সকের একদল চিকিৎসক একটি বিস্ময়কর পদ্ধতি আবিষ্কার করেছেন। পদ্ধতিটি বেশ কিছু রোগ প্রতিরোধ ও চিকিৎসায় কার্যকরী।

রাশিয়ায় উচ্চরক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে লোকচিকিৎসা হিসেবে ব্যবহার হয়ে আসছে এই পদ্ধতি। শুধু উচ্চরক্তচাপ নয়, ক্যানসার প্রতিরোধ ও লিভার সংক্রান্ত জটিলতার জন্যও বেশ কার্যকরী এটি। এ পদ্ধতিতে কিডনি পরিষ্কারও রাখা যায়।

এ জন্য ২০০ গ্রাম চিনি, ৭০০ গ্রাম বীট, দুই টেবিল চামচ ময়দা ও ১০০ গ্রাম কিসমিস প্রয়োজন। সঙ্গে তিন লিটার পানি ধরে এমন কাঁচের একটি পাত্রও দরকার পড়বে।

প্রস্তুতি : বীটগুলো পরিষ্কার করে টুকরো টুকরো কেটে একটি পরিষ্কার পাত্রে রাখুন। এরপর দুই টেবিল চামচ ময়দা ও ২০০ গ্রাম চিনি এতে যোগ করুন। এরপর এগুলোতে বিশুদ্ধ ঠান্ডা পানি ঢালুন। ভালো করে মিশিয়ে পাত্রটির মুখ আটকে দিন। দরকার হলে পাত্রের মুখে পর্দা জাতীয় কোনো কিছু লাগিয়ে নিন। একটি উষ্ণ স্থানে ৬ থেকে ৭ দিন সংরক্ষণ করে রাখুন। সেটাতে দিনে দুইবার নাড়া দিন। পাত্রের উপরে কোনো ফেনা তৈরি হলে তা অপসারণ করুন।

মিশ্রণটি তৈরি হয়ে গেলে প্রত্যেকবার খাবার খাওয়ার আগে তিন থেকে চার টেবিল চামচ করে খান। ব্যবহারের পর অবশ্যই পাত্রটি মুখ বন্ধ করে ফ্রিজে রাখতে হবে।

উপদানটি শেষ হওয়ার পর তিন মাস বন্ধ রেখে ফের একই পদ্ধতিতে আবার তৈরি করুন। এভাবে তিন বার খান। এগুলো খাওয়ার এক বছর পর আপনার লিভার থেকে বর্জ্য ও রাসায়নিক উপাদান বেরিয়ে যাবে। উচ্চ রক্তচাপ ও ক্যানসার চিকিৎসাতেও কাজে দেবে। তথ্যসূত্র : মেডিকেল নিউজ টুডে ডটকম।

Related posts

Leave a Reply