brandbazaar globaire air conditioner
ব্রেকিং নিউজঃ

হাওয়া: ৪ দিনে মণিহারে ২০ লাখ টাকার টিকিট বিক্রি!

হাওয়া: ৪ দিনে মণিহারে ২০ লাখ টাকার টিকিট বিক্রি!

ঝড়ের পূর্বাভাস দিয়েই মুক্তি পেয়েছে মেজবাউর রহমান সুমন পরিচালিত সিনেমা ‘হাওয়া’। গত ২৯ জুলাই মুক্তির আগেই সারাদেশে আলোচনার কেন্দ্রে চলে আসে সিনেমাটি। এর ‘সাদা সাদা  কালা কালা’ গানটি দেশজুড়ে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পায়। আর মুক্তির পর প্রশংসা ও আলোচনায় ‘হাওয়া’র রেশ ছড়িয়ে যায় সবার মাঝে।

প্রথম সপ্তাহে মাত্র ২৪টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায় ‘হাওয়া’। দ্বিতীয় সপ্তাহে হলের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় ৪১টি। ফলে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ছড়িয়ে যায় সিনেমাটি। শুক্রবার (৫ আগস্ট) থেকে দেশের সবচেয়ে বড় প্রেক্ষাগৃহ যশোরের মণিহারে প্রদর্শিত হচ্ছে ‘হাওয়া’। আর সেখানে রেকর্ড পরিমাণ দর্শক আসছে সিনেমাটি দেখতে।

শুক্রবার থেকেই মণিহারে হুমড়ি খেয়ে পড়ছে দর্শক। হলটির কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, সোমবার (৮ আগস্ট) পর্যন্ত মোট ১৩টি প্রদর্শনী করা হয়েছে। এতে প্রায় সাড়ে ১৪ হাজার মানুষ সিনেমাটি দেখেছেন।

মণিহারে টিকিটের দাম ১২০ থেকে ১৫০ টাকা। সে হিসাবে মাত্র চারদিনেই প্রায় ২০ লাখ টাকার টিকিট বিক্রি হয়েছে এখানে। যদিও মোট কত টাকার টিকিট বিক্রি হয়েছে, সেটা নির্দিষ্ট করে বলতে চাননি হলটির ব্যবস্থাপক তোফাজ্জল হোসেন। তবে শুধু শুক্রবারেই (৫ আগস্ট) প্রায় ৩ লাখ ২ হাজার টাকার টিকিট বিক্রি হয়েছে বলে জানান তিনি।

সিনেমা হল কতৃপক্ষের মতে, নিকট অতীতে কোনো বাংলা সিনেমার ক্ষেত্রে এমন দর্শকের ভিড় দেখা যায়নি। যশোরসহ পার্শ্ববর্তী নড়াইল, ঝিনাইদহ, মাগুরাসহ বিভিন্ন জেলা থেকে প্রতিদিন হাজার হাজার দর্শক আসছেন ‘হাওয়া’ দেখতে।

মাগুরা থেকে সিনেমা দেখতে আসা রাকিব হোসেন বলেন, “এর আগে হলে বসে কোনো সিনেমা দেখা হয়নি। এটাই জীবনে প্রথমবার এবং ‘হাওয়া’ সিনেমাটি দেখে চমৎকার অভিজ্ঞতা হলো।’’

ঝিনাইদহ থেকে আসা সেলিনা হোসেন বলেন, “সিনেমাটি অত্যন্ত আকর্ষণীয়। তবে বেশি আকর্ষণ সৃষ্টি করেছে ‘সাদা সাদা কালা কালা’ গানটি। এছাড়া সিনেমায় চঞ্চল চৌধুরী ও শরিফুল রাজ অসাধারণ অভিনয় করেছেন। আমি দেখার সময় পুরো হল কানায় কানায় পরিপূর্ণ ছিল।”

দর্শকের ঢল দেখে মণিহারে টিকিট কালোবাজারির অভিযোগও পাওয়া গেছে। নীলগঞ্জের বাসিন্দা মারুফ হোসেন অভিযোগ করে বলেন, ‘বাইরে টিকিটের কালোবাজারি হচ্ছে। কিন্তু কর্তৃপক্ষ কোনো নজর দিচ্ছেন না।’

তবে টিকিট কালোবাজারির অভিযোগ অস্বীকার করে মণিহার সিনেমা হলের ম্যানেজার তোফাজ্জল হোসেন ঢাকা পোস্টকে বলেন, ‘আমাদের সিনেমা হলে ৮০০ আসন রয়েছে। গত পাঁচ বছর পর এবার হল হাউজফুল হয়েছে। দর্শকদের চাহিদা থাকলে আমরা দুই সপ্তাহের অধিক সময় সিনেমাটি প্রদর্শন করবো। টিকিটে কোনো কালোবাজারি হচ্ছে না।’

উল্লেখ্য, সমুদ্রে মাছ ধরার একটি ট্রলারকে ঘিরে এগিয়েছে ‘হাওয়া’র গল্প। এর সঙ্গে আছে মিথলজি ও সম্পর্কের অণুপ্রবেশ। সিনেমাটির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন চঞ্চল চৌধুরী, নাজিফা তুষি, শরীফুল ইসলাম রাজ, সুমন আনোয়ার, নাসির উদ্দিন খান, সোহেল ম-ল, রিজভী রিজু, মাহমুদ হাসান ও বাবলু বোস। এটি প্রযোজনা করেছে সান মিউজিক অ্যান্ড মোশন পিকচার্স লিমিটেড।

 

Related posts