brandbazaar globaire air conditioner
ব্রেকিং নিউজঃ

দেশের স্বার্থে, উন্নয়নের স্বার্থে ব্যবসায়ীদের এক কাতারে থাকতে হবে। সালমান এফ রহমান

দেশের স্বার্থে, উন্নয়নের স্বার্থে ব্যবসায়ীদের এক কাতারে থাকতে হবে। সালমান এফ রহমান

প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান দেশের ব্যবসায়ী সম্প্রদায়কে উদ্দেশ্য করে বলেছেন, বুকে হাত দিয়ে যদি বুঝতে পারেন আপনার ভাগ্যের উন্নতি হয়েছে এবং ব্যবসার সম্প্রসারণ হয়েছে তাহলে দেশের স্বার্থে, উন্নয়নের স্বার্থে সমস্ত ব্যবসায়ী সম্প্রদায়কে এক কাতারে থাকতে হবে। শেখ হাসিনা সরকারকে আবার ক্ষমতায় আনতে কাজ করতে হবে। গতকাল ‘বঙ্গবন্ধুর অর্থনীতি বাণিজ্য ভাবনা’ শীর্ষক সেমিনারে তিনি এই আহ্বান জানান। ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (এফবিসিসিআই) জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।
সালমান এফ রহমান বলেন, আপনারা বলুন শেখ হাসিনার গত ১৪ বছরের শাসনামলে আপনাদের ইন্ডাস্ট্রি ব্যবসা সম্প্রসারণ হয়েছে কিনা? ব্যক্তিগত উন্নয়ন ঘটেছে কিনা? শুধু ব্যবসায়ী নয়, এই সময়ে সাধারণ মানুষেরও ভাগ্যের উন্নয়ন ঘটেছে।

এই সময়ে দেশ উন্নয়নের অনন্য উচ্চতায় পৌঁছেছে। করোনাকালীন বিশ্ব সংকটেও বাংলাদেশ তার অর্থনীতি ধরে রেখেছে, উন্নত দেশ যেখানে হিমশিম খেয়েছে। বাংলাদেশ দক্ষ হাতে করোনা মোকাবিলার মাধ্যমে বিশ্ব র‌্যাংকিংয়ে পঞ্চম স্থানে উঠে এসেছে। এখন ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধ পরিস্থিতির কারণে আমদানি বৃদ্ধির ফলে আমাদের রিজার্ভ কিছুটা সংকুচিত হয়েছে। মূল্য কিছুটা বেড়েছে। তবে এ পরিস্থিতি উত্তরণে সরকার সব ধরনের পদক্ষেপ ইতিমধ্যে নিয়েছে। তার ফলাফল আসতে শুরু করেছে।

আমরা আশা করছি, আগামী ডিসেম্বরের মধ্যেই কেন্দ্রীয় ব্যাংকের রিজার্ভ পরিস্থিতির উন্নতি হবে এবং বৈদেশিক মুদ্রার মান টাকার বিপরীতে ডলারের মূল্যমান স্থিতিশীল হবে। বৈশ্বিক কারণে দেশের এই খারাপ সময় নিয়ে কিছু বিরোধী গোষ্ঠী রাজনৈতিক ফায়দা লুটার চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ করে তিনি বলেন, তারা মানুষের কাছে ভুল বার্তা দিচ্ছে। বিক্ষুব্ধ করার চেষ্টা করছে। নির্বাচনের সময় বিরোধী চক্রটি যেমন সক্রিয় হয়ে ওঠে, তেমনি ব্যবসায়ী সম্প্রদায় গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠে। বুকে হাত দিয়ে যদি বুঝতে পারেন আপনার ভাগ্যের উন্নতি হয়েছে এবং ব্যবসার সম্প্রসারণ হয়েছে তাহলে দেশের স্বার্থে, উন্নয়নের স্বার্থে সমস্ত ব্যবসায়ী সম্প্রদায়কে এক কাতারে থাকতে হবে। শেখ হাসিনা সরকারকে আবার ক্ষমতায় আনতে কাজ করতে হবে।

 

জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি প্রসঙ্গে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেন, নিঃসন্দেহে জ্বালানির দাম বাড়ায় মানুষের কষ্ট হবে। খরচ বাড়বে। অনেকের অনেক সমস্যা হবে। কিন্তু এ কষ্ট সাময়িক। বৈশ্বিক বাস্তবতার কারণেই এই সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে। তবে আমাদের সুদিন খুব কাছে। কখনো কখনো সেই সুদিনের অপেক্ষায় একটু কষ্ট স্বীকার করতে হয়। সুদিনের অপেক্ষায় তিনি জনগণকে এই সাময়িক কষ্ট মানিয়ে নেয়ারও পরামর্শ দেন। মন্ত্রী বলেন, অপেক্ষা করুন, বঙ্গবন্ধু কন্যা আপনাদের এই কষ্ট দ্রুত লাঘব করে আপনাদের মুখে হাসি ফোটাবেন। নির্বাচনকালীন নানা ষড়যন্ত্র উল্লেখ করে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, নির্বাচন ঘনিয়ে আসছে। নানামুখী ষড়যন্ত্র হচ্ছে। বিরোধীরা নানা ইস্যু খুঁজছে। পদ্মা সেতুর খরচ বেশি হওয়া নিয়ে সরব আওয়াজ তোলা হচ্ছে। জ্বালানির দাম বেশি নিয়ে অনেক কথাবার্তা হচ্ছে। ক্ষমতার পালা বদল নিয়েও নানা চেষ্টা হচ্ছে। নির্বাচনের সময় সুযোগ-সন্ধানী চক্রের এই তৎপরতা চলতেই থাকে। তবে আমাদের সতর্ক থাকতে হবে।

এফবিসিসিআই সভাপতি মো. জসিম উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সেমিনারে মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ও বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ আতিউর রহমান। আতিউর রহমান বলেন, বাংলার মানুষের পেট ভরা ভাত আর বেকারের কাজ নিশ্চিত করাই ছিল বঙ্গবন্ধুর অর্থনৈতিক ভাবনার কেন্দ্রবিন্দু। তার এই অন্তর্নিহিত ভাবনার উপর ভিত্তি করেই বাংলাদেশের আজকের যত অর্থনৈতিক অগ্রগতি। যার ধারাবাহিকতা ধরে রেখেছেন তার যোগ্য উত্তরসূরি জাতির জনকের কন্যা শেখ হাসিনা।

Related posts