brandbazaar globaire air conditioner

দোহারে সরকারি পদ্মা কলেজের অনুষ্ঠানে অমুক্তিযোদ্ধা অতিথির নামের আগে বীর মুক্তিযোদ্ধা

দোহারে সরকারি পদ্মা কলেজের অনুষ্ঠানে অমুক্তিযোদ্ধা অতিথির নামের আগে বীর মুক্তিযোদ্ধা
নিজস্ব প্রতিনিধি,
ঢাকার দোহার উপজেলার পদ্মা সরকারি কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া ও পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথিদের তালিকায় একজন অমুক্তিযোদ্ধাকে বীর মুক্তিযোদ্ধা পদবি দিয়ে দাওয়াতপত্র বিতরণ করা হয়েছে। এমন ঘটনায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ সুশীলসমাজ ও মুক্তিযোদ্ধারা নিন্দা জানিয়েছেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা আসাদুজ্জামান খান কামাল এমপি।
জানা যায়, আগামী ২ এপ্রিল শনিবার অনুষ্ঠিতব্য উপজেলার মুকসুদপুর ইউনিয়নের ফুলতলা এলাকায় পদ্মা সরকারি কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া ও পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠানের দাওয়াত পত্রে দোহার উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আলী আহসান খোকন শিকদারের নামের আগে বীর মুক্তিযোদ্ধা পদবি উল্লেখ করে এ কার্ড ছাপা হয়। প্রকৃতপক্ষে আলী আহসান খোকন শিকদারের নাম বীর মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকাভুক্ত নয়। এদিকে অনুষ্ঠানের দাওয়াত পত্রটি সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান এবং বিশিষ্ট ব্যক্তিদের বিতরণ অব্যাহত রেখেছেন কলেজ কর্তৃপক্ষ। দাওয়াতপত্র হাতে পেয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এমন ভুল নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে অতিথিদের মাঝেও।
এবিষয়ে আলী আহসান খোকন শিকদারের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, কার্ডে কি লেখা হয়েছে আমার জানা নেই। কলেজ কর্তৃপক্ষ আমাকে না জানিয়েই এ ইনভাইটেশন কার্ডটি বানিয়েছেন। তিনি আরও বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকায় আমার নাম যাচাই-বাছাই চলছে। তবে এখনও আমি বীর মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকাভুক্ত হইনি।
সরকারি পদ্মা কলেজের অধ্যক্ষ মো. জালাল হোসেন বলেন, দাওয়াত পত্রের বিষয়টি কর্তৃপক্ষের একজনকে অবহিত করে ছাপা হয়েছে। যদি কোনো ভুল হয়ে থাকে তবে ব্যানারে নামের পদবি ঠিক করে দেয়া হবে।
উপজেলা যুদ্ধকালীন কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা রজ্জব আলী মোল্লা বলেন, এটি খুবই দুঃখজনক ঘটনা। যদি পদবি ভুল হয়ে থাকে তবে কার্ড বিতরণ ঠিক হয়নি। আমরা এর নিন্দা জানাই।
এবিষয়ে জানতে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা আসাদুজ্জামান খান কামাল এমপি’র ফোনে একাধিকবার ফোন দিলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

Related posts