brandbazaar globaire air conditioner

ধর্ষণের দায়ে বাবার যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

ধর্ষণের দায়ে বাবার যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

রংপুরের পীরগঞ্জে নিজ মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে এক বাবার যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত।

সোমবার (৭ মার্চ) বেলা ১টার দিকে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৩-এর বিচারক এম আলী আহমেদ এ রায় ঘোষণা করেন। এ সময় অভিযুক্ত আসামি আদালতের এজলাসে উপস্থিতি ছিলেন।

মামলার এজাহার ও আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১৮ সালের ৪ আগস্ট রাতে নিজ বাড়িতে মেয়েকে একা পেয়ে ধর্ষণ করেন বাবা। এরপর ঘটনাটি কাউকে না জানানোর জন্য ভয়ভীতিও দেখান। পরে একাধিকবার ধর্ষণের চেষ্টা করলে স্কুলপড়ুয়া মেয়েটি ধর্ষণের বিষয়টি তার মাকে জানায়। এ ঘটনায় ১৪ আগস্ট ধর্ষণের অভিযোগ এনে স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করেন স্ত্রী।

এদিকে ধর্ষণের ঘটনাটি জানাজানি হলে মেয়েটির পড়ালেখা বন্ধ হয়ে যায়। অভাব-অনটনের সংসারে দিশেহারা মা তার সন্তানদের নিয়ে বাবার বাড়িতে চলে যান। পরে ওই মেয়েটি সংসারের হাল ধরতে পোশাক কারখানায় কাজ নেয়।

পীরগঞ্জ থানার তৎকালীন উপপরিদর্শক (এসআই) দেবাশীষ কুমার রায় তদন্ত শেষে ২০১৯ সালের ১২ জানুয়ারি আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। আদালত প্রায় তিন বছর ওই মামলার বিচারকাজ শেষে সোমবার রায় প্রদান করেন।

রায়ে অভিযুক্ত আসামিকে যাবজ্জীবন দণ্ডাদেশ প্রদান করা ছাড়াও পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে আরও দুই মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন বিচারক এম আলী আহমেদ।

মামলার বাদীপক্ষের আইনজীবী কাজী মাহফুজুল ইসলাম এই রায়ের প্রতিক্রিয়ায় বলেন, ঘৃণ্য এই অপরাধের কারণে পুরো পরিবারটি ক্ষতিগ্রস্ত। সামাজিক এই অবক্ষয় রোধে ধর্মীয় ও সামজিক সচেতনতা বাড়াতে হবে। আমরা রায়ে সন্তুষ্ট তবে আসামির ফাঁসির আদেশ আশা করেছিলাম।

Related posts