brandbazaar globaire air conditioner

ধামরাইয়ে স্কুলছাত্রীকে অপহরণের পর ধর্ষণ, শিক্ষক গ্রেপ্তার

ধামরাইয়ে স্কুলছাত্রীকে অপহরণের পর ধর্ষণ, শিক্ষক গ্রেপ্তার

ঢাকার ধামরাই উপজেলার কান্দিকুলে এক স্কুল ছাত্রীকে অপহরণ করে ৬ দিন আটক রেখে ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে মোঃখলিলুর রহমান বিপ্লব (৪৩) নামে কোচিং শিক্ষকের নামে। ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে ধামরাই থানায় একটি অভিযোগ করলে পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করে।

 

শুক্রবার (৮ জুলাই) ৫ দিনের রিমান্ড চেয়ে সকালে তাকে কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে। এর আগে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে আইনগন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হলে তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে অপহরণকৃত স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করা হয়।

 

শনিবার (২জুলাই) সকাল ১০টার দিকে স্কুলে যাওয়ার পথে শরিফবাগ এলাকায় অপহরণের শিকার হয় ভুক্তভোগী ছাত্রী। সে ধামরাই উপজেলার সদর ইউনিয়নের আফাজ উদ্দিন স্কুল এন্ড কলেজের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী।

 

অভিযুক্ত খলিলুর রহমান বিল্পবের বাড়ি ময়মনসিংহ জেলার ভালুকা থানার মামারিশপুর গ্রামের মোঃ শহিদুল ইসলামের ছেলে। সে বর্তমানে ধামরাই পৌরসভার কান্দিকুল এলাকায় জায়গা কিনে বাড়ি করেছেন। সেখানে বিল্পব কোচিং সেন্টার খুলে বিভিন্ন শ্রেণীর ছাত্র-ছাত্রীদের কোচিং করাতেন।

 

ভুক্তভোগী সেই স্কুলছাত্রী জানায়, শনিবার সকালে নিজ বাড়ি থেকে শরীফবাগ আফাজ উদ্দিন স্কুল এন্ড কলেজে পায়ে হেটে যাওয়ার পথে শরীফবাগ এলাকায় পৌছালে রাস্তায় দাড়িয়ে থাকা বিল্পব ও তার সহযোগীরা একটি মাইক্রোবাসে জোরপূর্বক তাকে তুলে নিয়ে যায়।

 

ভূক্তভোগীর বাবার গণমাধ্যমকে জানায়, সন্ধ্যা হয়ে গেলেও মেয়ে বাড়ি না ফেরায় পরিবারের সদস্যরা সকল অত্মীয় বাড়িতে খোজ নিয়েও ভুক্তভোগীকে খুজে পায় না। এরপর ধামরাই থানায় গিয়ে তিনি একটি অভিযোগ দায়ের করে। পরে গতকাল রাতে আসামী বিপ্লবকে আটক করে আজ সকালে আসামীর দেওয়া তথ্যমতে মেয়েকে পুলিশ উদ্ধার করে।

 

তিনি আরও বলেন, আমার মেয়েকে রাস্তা থেকে অপহরণ করে নিয়ে যায় বিপ্লব। পুলিশ আমার মেয়েকে উদ্ধার করেছে। আমি আমার মেয়ের অপহরণকারী বিপ্লবের কঠোর শাস্তি দাবি করছি। তবে অভিযুক্তের পরিবার তাকে সমঝোতার কথা বলেছিল।তিনি কোন সমঝোতা চায় না । তিনি আইনের মাধ্যমে বিল্পবের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন।

 

এ বিষয়ে ধামরাই থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোঃ শিমুল মোল্লা বলেন, আফাজউদ্দিন স্কুল এন্ড কলেজের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর এক ছাত্রী অপহরণের একটি অভিযোগ পেয়ে তদন্ত করে অভিযান চালিয়ে আইনগন এলাকা থেকে বিল্পব হোসেনকে আটক করা হয়েছে এবং তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করা হয়েছে।পরে মেয়ের বাবা বাদী হয়ে বিল্পবের বিরুদ্ধে একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছেন। ৫ দিনের রিমান্ড চেয়ে আজ সকালে অভিযুক্তকে কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে।

Related posts