brandbazaar globaire air conditioner

স্কুল গুলোতে কম্পিউটার প্রোগ্রামিং শিক্ষা ব্যবস্থা চালু করা হবে || নবাবগঞ্জে সালমান এফ রহমান

স্কুল গুলোতে কম্পিউটার প্রোগ্রামিং শিক্ষা ব্যবস্থা চালু করা হবে || নবাবগঞ্জে সালমান এফ রহমান

নবাবগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি.
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা, ঢাকা-১ আসনের সংসদ সদস্য সালমান এফ রহমান বলেছেন, দেশের ১০ লাখ তরুণ-তরুণী ফ্রিল্যান্সিংয়ের মাধ্যমে বাড়িতে বসে বছরে দুই বিলিয়ন ডলার আয় করছে। তাই শিক্ষার্থীদের এ ব্যবস্থায় যুক্ত করতে স্কুল গুলোতে কম্পিউটার প্রোগ্রামিং শিক্ষা ব্যবস্থা চালু করা হবে। যাতে তারা স্বনির্ভর হয়ে বড় হতে পারে। এর জন্য নবাবগঞ্জের ১৮০টি স্কুল নিয়ে ৩/৪ মাসের মধ্যে একটি প্রকল্প গ্রহন করা হবে। এর জন্য অনুকুল পরিবেশ তৈরি করার চেষ্টা করছি।
শনিবার বিকালে ঢাকার নবাবগঞ্জের কৈলাইল ইউনিয়নের নয়াকান্দা হামিদ আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের সুবর্ণ জয়ন্তী উৎসব অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
এমপি বলেন, ইতিমধ্যে দেশব্যাপি ওয়াইফাই ইন্টারনেট সেবা চালু করেছে সরকার। সেটা কাজে লাগিয়ে সারাদেশ টেলি-মেডিসিনের আওতায় আনা হবে। যাতে সাধারণ মানুষ ঘরে বসে চিকিৎসা সেবা নিতে পারে। এতে চিকিৎসা ব্যয় কমে যাবে। আগামী একমাসের মধ্যে নবাবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে দুটি ইউনিয়ন কমিউনিটি সেন্টারের মাধ্যমে যুক্ত করে পরীক্ষামূলকভাবে এই টেলি-মেডিসিন কার্যক্রম শুরু হবে। সফল হলে উপজেলাব্যাপি পরে সারাদেশে এ সেবা নিশ্চিত করা হবে।
যাদের জমি অধিগ্রহন করা হবে তারা অগ্রাধিকার ভিত্তিতে কর্মসংস্থান পাবেন।
অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আসাদুজ্জামান। বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ও কৈলাইল ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ পান্নু মিয়া অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন।
উপস্থিত ছিলেন- দোহার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আলমগীর হোসেন, নবাবগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন আহমেদ ঝিলু, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এইচ এম সালাউদ্দীন মনজু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জালাল উদ্দিন, দোহার সার্কেলের এএসপি এস এম জহিরুল ইসলাম, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) রাজিবুল ইসলাম, নবাবগঞ্জ থানার ওসি মোস্তফা কামাল, দোহার থানার ওসি সাজ্জাদ হোসেন, ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায় সম্পাদক মিজানুর রহমান কিসমত, শিক্ষা ও মানবসম্পদ সম্পাদক সাইদুর রহমান খান সোহেল, ইউপি চেয়ারম্যান- সাফিল উদ্দিন মিয়া, ইব্রাহীম খলিল, দেওয়ান তুহিনুর রহমান, আব্দুল জলিল বেপারী, নন্দলাল সিং, আওয়ামী লীগ নেতা- রেজাউর রহমান রেজা, বশির আহমেদ, অসীম সরকার, সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক আজহার আহমেদ বাবুল, ছাত্রলীগ নেতা- গিয়াস উদ্দিন সোহাগ, সাইফুল বারী শান্ত, দিপ্ত দেওয়ান, ফিরোজ হোসেন, সম্রাট, রিমন দাশ প্রমুখ।
পরে, সন্ধ্যায় অ্যাক্রোবেটিক শো প্রদর্শন করেন বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডমির শিল্পীরা। রাতে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

Related posts